খাগড়াছড়িতে স্তনক্যান্সার বিষয়ে অনলাইন ভিত্তিক সেমিনারের অনুষ্ঠিত।

 প্রকাশ: ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫২ অপরাহ্ন   |   জাতীয়


খাগড়াছড়ি প্রতিনিধিঃ

  খাগড়াছড়ির মাটিরাংগায় 

অক্টোবর মাসটি বিশ্বব্যাপী স্তনক্যান্সার সচেতনতা মাস হিসেবে পালিত হয়। ১৯৮৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে সর্বপ্রথম এই মাসটিকে আন্তর্জাতিক স্তনক্যান্সার সচেতনতা মাস হিসেবে ঘোষণাকরা হয়। রোগটির নাম শুনেনি এমন মানুষ হয়ত খুঁজে পাওয়া কঠিন। কিন্তু এই রোগের লক্ষণ কিংবা এর প্রাথমিক পর্যায়ে রোগ নির্ণয় এবং প্রতিরোধ বিষয়ে সাধারণ মানুষের ধারণা নেই বললেই চলে। বিশেষ করে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীরা এই রোগের সচেতনতা ও চিকিৎসা সম্পর্কে অনেকটাই অজ্ঞ। প্রতিবছর বাংলাদেশে প্রায় ২০ থেকে ৩০ হাজার নারী নতুন করে এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। একটি জরিপে দেখা দিয়েছে যে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি ৮ জন নারীর মধ্যে ১ জননারী এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। 

পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের মধ্যে স্তনক্যান্সার বিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে বেসরকারি সেচ্ছা সেবী সংস্থা আলোর ভুবন ট্রাষ্টের প্রধান প্রকল্প দক্ষিনএশিয়া মেডিকেল ফিজিক্স ও ক্যান্সার গবেষনা কেন্দ্র (এস.সি.এম.পি.সি.আর) এর উদ্যোগে গত রবিার বেলা ৩ টা থেকে ৬ টাপর্যন্ত অনলাইন ভিত্তিক সেমিনারের আয়োজনকরা হয়।

 প্রফেসর ডঃ হাসিন অনুপমা আজহারী ( প্রধান নির্বাহীকর্মকর্তা, এসসিএমপিসিআর) উপস্থাপনায় মাটিরাঙ্গা উপজেলার জলপাহাড় হলে স্থানীয়নারীদের উদ্দেশ্যে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় সেমিনারটির । সেমিনারে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে নানান বয়সের প্রায় ১২০জন স্থানীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী নারীরা অংশ গ্রহণ করেছে। বীকন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠানের বক্তা হিসেবে ছিলেন প্রফেসরডঃ গোলাম আবু জাকারিয়া (প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও চিফ মেডিকেল ফিজিসিস্ট, গুমার্সবাক টিচিং হাসপাতাল, কোলোন বিশ্ববিদ্যালয়, জার্মানি), ডাঃআলীয়া শাহনাজ (সহযোগী অধ্যাপক, অনকোল জিবিভাগ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল এবং ডাঃ শাহিদা আলম (সহকারী অধ্যাপক, রেডিয়েশন অনকোলজি বিভাগ, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ক্যান্সার রিসার্চ অ্যান্ড হসপিটাল (এনআইসিআরএইচ)। 

উল্লেখ্য বাংলাদেশে দক্ষ, শিক্ষিত ও সুস্থ মানবসম্পদ উন্নয়নে উচ্চতর শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়নের লক্ষ্যে ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সহ দক্ষিণ এশিয়ার স্বাস্থ্য সেবার মানউন্নয়নের লক্ষ্যে আলোভূবন ট্রাষ্ট (আলোবি.টি) (এস.সি.এম.পি.সি.আর) প্রকল্পের কর্মকান্ড চালুকরে। (আলোবি.টি) এবং (এস.সি.এম.পি.সি.আর) এর প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ড. গোলাম আবুজাকারিয়া ৯০ এর দশক থেকে বাংলাদেশে ক্যান্সার চিকিৎসায় দক্ষ জনবল তৈরীর লক্ষ্যে কাজ করেআসছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই (এস.সি.এম.পি.সি.আর) বাংলাদেশসহ দক্ষিণএশিয়ার বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক, নার্স ও চিকিৎসা পদার্থ বিদদেও জন্য দেশী বিদেশী সনামধন্য প্রশিক্ষক শিপ্রক্ষণ কর্মসূচি এবং প্রত্যন্তঅঞ্চলের মানুষের মধ্যে ক্যান্সার প্রতিরোধ ও চিকিৎসা সম্পর্কিত সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

দিদারুল: আলম,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

মোবা :০১৫৫৬৬০৫৫৫২

জাতীয় এর আরও খবর: