বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননা'র মামলা করায় হুমকির মুখে প্রবাসী কামাল

 প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০২২, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন   |   জাতীয়




নিজস্ব প্রতিবেদকঃঃ সিলেটের ওসমানীনগরে পূর্ব বিরোধের জের ধরে লন্ডন প্রবাসী কামাল আহমেদকে মিথ্যা মামলা ও কেয়ারটেকারকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগকারী যুক্তরাজ্য প্রবাসীর বরাত দিয়ে জানা যায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্য সফরকালে বিএনপি কর্তৃক তার গাড়ি বহরে হামলা, বাংলাদেশ দূতাবাস ঘেরাও,ভাংচুর ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবির অবমাননার ঘটনায় গত ২১ আগস্ট ২০২১ ইং সিলেটের ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন বৃটেনের ম্যানচেস্টার যুবলীগের সহ-সভাপতি কামাল আহমদ। যার মামলা নম্বর (১৩)। মামলায় তিনি লন্ডন মহানগর যুবদলের সভাপতি আব্দুল খায়েরসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ করেন;এছাড়া অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজনকে অভিযুক্ত করেন।


আবুল খায়ের (৩৬) উপজেলার উছমানপুর ইউপির রাউৎখাই গ্রামের মো.আব্দুল লতিফের ছেলে। সম্প্রতি তিনি বাংলাদেশে বেড়াতে আসলে গত ২১ আগস্ট ওসমানীনগর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসমানীনগর থানার এসআই সাইফুল মোল্লা যুবদল নেতা খায়েরকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিতও

করেছিলেন।


এরপর দিন অর্থাৎ ২২ আগস্ট ঈদুল আজহার দিন ওসমানীনগর থানার ওসি,'কে ফোন করে আসামী খায়েরকে ছেড়ে দিতে তদবিরও করেন একজন আওয়ামী লীগ নেতা।কোন তদবির তদারকিতে কাজ না হওয়াতে জেল খাটতে হয় যুবদল নেতা খায়েরকে। তারপর জেল থেকে জামিনে বেরিয়ে আসে।পারি জমায় যুক্তরাজ্য আর যুক্তরাজ্য বসেই ঘুটি চালতে থাকে। অবশেষে কোন কিছু করতে না পেরে ওসমানীনগর থানার মোল্লারপাড়া মৌজায় আমার পিতা মরহুম হাজী আব্দুল বারী ২০০২ সালে ১৫ শতক ভূমি ক্রয় করেন।আমার পিতার মৃত্যুর পর এই ভূমিতে বাউন্ডারীসহ আমি একটি ভবন নির্মাণ করি।এই ভবন নির্মাণের শুরু থেকে খায়েরের সহযোগী বালাগঞ্জ থানার মজলিসপুর গ্রামের সাজিদ আলীর ছেলে আব্দুল খালিক বিভিন্ন সময়ে মোবাইল ফোনে এবং ভবন নির্মাণস্থলে এসে কেয়ারটেকার শাহীন মিয়ার কাছে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করতো।


সে হুমকি দিয়ে বলত তাকে চাঁদা না দিলে এই ভূমিতে ভবন নির্মাণ করতে দেবে না এবং এই জায়গাটি তার,যদিও এই ভূমির উপর মাননীয় আদালতের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা আদালতে ২০২১ আগস্ট এই ভূমিতে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার আদেস প্রদান করেন।


কিন্তু এই আদেস অমান্য করে গত ২৭ মে খায়েরের সহযোগী আব্দুল খালিকের নির্দেশে তাদের বাহিনী দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমার ভূমিতে অনুপ্রবেশ করে ভাড়াটিয়াদের জোরপূর্বক

বাসা থেকে বের করে দেয়ার চেষ্টা চালায়।


একই কায়দায় গত বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে বাসায় প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে কেয়ারটেকার শাহীন মিয়ার ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালায়।হামলা করে তাকে রক্তাক্ত জখম করে।


এ ঘটনায় ৯ জনের নাম উল্লেখ করে শাহীন মিয়া আদালতে মামলা দায়ের করেন।এদিকে প্রবাসী কামাল আহমেদ আরো উল্লেখ করে বলেন ভুমিদস্যু খালিকের নেতৃত্বে ভূয়া কাগজপত্র দেখিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাদাবাজির মামলাসহ আরও একাধিক মামলা ও হামলা করে হয়রানি করে ওই জমিটি জোর জবর দখলের পায়তারা করছে।আমাদের বিরুদ্ধে বারবার মিথ্যা হামলার নাটক সাজিয়ে সংবাদকর্মীদের মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিয়ে আমাদের হয়রানিসহ আর্থিক ও মানষিকভাবে বিপর্যস্ত করছে। খায়ের ভয়ংকর ব্যক্তি আব্দুল খালিকসহ তার নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী রয়েছে। কেউ এই বাহিনীর অপকর্মের প্রতিবাদ করলে সে ও তার লোকজন প্রতিবাদকারীর উপর নির্মম অত্যাচার নির্যাতন চালায়। তাই ভয়ে কেউ মুখ খুলে না। পরিশেষে বৃটেনের ম্যানচেস্টার যুবলীগের সহ-সভাপতি কামাল আহমদ,বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবির অবমাননা করার ঘটনায় নিজে বাদি হয়ে মামলা দায়ের করায়,কাল হয়েছে হলো আমার । এ অবস্থায় প্রবাসী ভুক্তভোগী কামাল আহমেদ তাদের এহেন অমানবিক নির্যাতন ভুমিদস্যু সন্ত্রাসীদের হয়রানি থেকে রক্ষার জন্য প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

জাতীয় এর আরও খবর: