কালীগঞ্জে ১২৩ ফুট উঁচুতে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য তৈরি করলো একটি মুক্তিযোদ্ধা পরিবার।

 প্রকাশ: ৩০ জুলাই ২০২১, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন   |   খুলনা


ইমরান হোসেন ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ প্রতিনিধি

মহান স্বাধীনতার  স্থাপতি, মুক্তিযোদ্ধার মহানায়ক জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিকে স্মরণীয়  করে রাখতে এবার ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার শমসের নগরে ১২৩ ফুট উচ্চতায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপন করলেন এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবার। শমসেরনগরের ডা. রাশেদ শমসেরের পরিবারের অর্থায়নে ১২৩ ফুট উচ্চতার টাওয়ার নির্মাণ করা হয়েছে

মুক্তিযোদ্ধা শমসের পরিবারের সদস্যরা জানান, বঙ্গবন্ধু জাদুঘরের জন্য ২০টি আব¶ ভাস্কর্য এবং ‘দ্য স্ট্যাটু অব স্পিচ অ্যান্ড ফ্রিডম’-এর মূল নকশা অনুযায়ী সব কার্যক্রম কিছুদিনের মধ্যেই দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। তারা জানান, মূলত এই ট্ওায়ারে এটাই বোঝানো হয়েছে যে, জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে ১০০ ফুট এবং ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭১ সাল মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত ২৩ বছরকে ২৩ ফুট ধরা হয়েছে। মোট ১২৩ ফুট উপরে ভাস্কর্যটি স্থাপন করে মূল বিষয়বস্তু হিসাবে বোঝানো হয়েছে। ৮তলা বিশিষ্ট ১২৩ ফুট উচ্চতায় এই ট্ওায়ার নির্মান করে তার উপরে জাতীর পিতার ভাস্কর্য বসানো হয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলার শমসেরনগরের সরকারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজে স্থাপন হওয়া এ ভাস্কর্যের নাম দেওয়া হয়েছে ‘দ্য স্ট্যাচু অব স্পিচ অ্যান্ড ফ্রিডম। এটির ডিজাইন করেছেন বুয়েটের ইঞ্জিনিয়ার কীর্তিবাস রায় ও আজাদ রানা। ভাস্কর্য ও জাদুঘর বাস্তবায়নে নিয়োজিত আছেন সরকারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. সফিকুল ইসলাম, কলেজের সভাপতি ডা. রাশেদ শমসেরসহ আয়োজকরা।

শমসের নগর সরকারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ড. রাশেদ শমসের বলেন, এই টাওয়ারে ১২৩ ফুট উপরে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বসানো হয়েছে। এত বেশি উচ্চতায় কোনো রাষ্ট্রনায়কের ভাস্কর্য স্থাপন বিশ্বে এটিই প্রথম বলে দাবি করছেন তিনি, তার পরিবার ও এলাকাবাসী।