মুকসুদপুরের দলীয় শৃঙ্খলা ভংগের দায়ে ৩ নেতাকে দল থেকে বহিস্কার

 প্রকাশ: ২০ নভেম্বর ২০২১, ১২:৫৫ অপরাহ্ন   |   রাজনীতি


গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: 

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় শৃঙ্খলা ভংগ করে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় মুকসুদপুরের ৩ নেতাকে তাদের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিয়ে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এরা হলেন মহারাজপুরের চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সালাউদ্দীন মিয়া, গোহালা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যনির্বাহী সদস্য শাহাদত হোসেন লিটন এবং কাশালিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রার্থী ও কাশালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফরহাদ মল্লিক।

আজ শনিবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে ওই ৩ নেতার বহিস্কারের কথা জানান মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ। 

এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড আতিকুর রহমান মিয়া, সিনিয়র সহ-সভাপতি আশরাফ আলী আশু, প্রচার সম্পাদক জাহিদুর রহমান, ত্রাণ ও সমাজ ক্যল্যাণ সম্পাদক হায়দার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। 

সাংবাদিক সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম শিকদার লিখিত বক্তব্যে বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের কর্তৃক ২ নভেম্বর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ স্বাক্ষরিত পত্রের নির্দেশনা অনুযায়ী চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২১ এ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া এবং দলের শৃংখলা ভঙ্গ ও গঠনতন্ত্র পরিপন্থি কর্মকান্ডের দায়ে মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ১২ নভেম্বর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ অনুষ্ঠিত সাধারণ সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নির্ম লিখিত ৩ (তিন) জন নেতা/কর্মীকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৪৭ (ঞ) ও ৪৭ (ঠ) ধারা মোতাবেক তাঁদের স্ব-স্ব দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি প্রদান করে দলের সাধারণ সদস্য পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। 

মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সালাউদ্দিন মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য  শাহাদৎ হোসেন লিটন, এবং উপজেলার কাশালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ফরহাদ মল্লিক। 

তিনি আরও জানান বহিস্কৃত ৩জন নেতার বহিস্কারাদেশ চুড়ান্ত অনুমোদনের জন্য  গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাজনীতি এর আরও খবর: